1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
বৃষ্টি হলেই সড়কে জলাবদ্ধতা • PRIYOBANGLANEWS24
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৫৮ অপরাহ্ন

বৃষ্টি হলেই সড়কে জলাবদ্ধতা

শামীম হোসেন সামন.
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১৪ মে, ২০২২
  • ২৯৭ বার দেখা হয়েছে।

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার বারুয়াখালী ইউনিয়নের মাদলা এলাকায় রাস্তায় অল্প বৃষ্টিতেই সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। এতে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। পথচারীদের ভোগান্তি পৌঁছায় চরমে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পানি নিষ্কাশনের জন্য নালা ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টি হলেই রাস্তায় জমে যায় পানি। সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন বারুয়াখালী থেকে কঠুরি, ঘোষাইল, রাজাপুর, তিতপালদিয়া, বেড়িবাঁধসহ পাশ্ববর্তী মানিকগঞ্জ জেলার লোকজন যাতায়াত করে। সামান্য বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতার কারনে প্রায় সাড়ে ৪ কিলোমিটার জায়গা ঘুরে গন্তব্যে পৌঁছাতে হয় পথচারীদের। গত এক সপ্তাহের সামান্য বৃষ্টি হওয়ায় রাস্তায় পানি জমে যায়। এদিকে ভারী বর্ষণে পোহাতে হয় সীমাহীন দুর্ভোগ।রাস্তায় জলাবদ্ধতার কারণে চলাচলে বেগ পেতে হচ্ছে ইজিবাইক, মোটরসাইকেল, সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালকদের। পানি নিষ্কাশনের কোনো নালা নেই। সড়কে বৃষ্টির পানি জমে রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তাগুলোতে পানি আর কাদা জমে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। পানি নিষ্কাশনের জন্য নালা ব্যবস্থা না থাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। সঠিক নালা ব্যবস্থা করা হলে পথচারীরা এ ভোগান্তি থেকে মুক্তি পাবেন।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আলাউদ্দিন বলেন, ‘অল্প বৃষ্টি হলেই এ রাস্তায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে কর্দমাক্ত হয়ে যায়। মানুষ তো দূরের কথা, এ সময় যানবাহনও চলাচল করতে পারে না। ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় পথচারীদের। আমরা চাই এখানে পানি নিষ্কাশনের জন্য নালার ব্যবস্থা করা হোক।’

ইজিবাইক চালক মিন্টু মিয়া বলেন, জলাবদ্ধতার কারণে রাস্তার পরিস্থিতি খুবই বাজে রূপ ধারণ করে। এ সময় ইজিবাইক চালাতে সমস্যায় পড়তে হয়। এ সময় পানিতে পড়ে দুর্ঘটনার শঙ্কায় থাকি।’

মোটরসাইকেল চালক আল আমিন বলেন, পানির মধ্য দিয়ে মোটরসাইকেল চলানোর সময় রাস্তার অবস্থা বোঝা যায় না। ফলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকে। নালা ব্যবস্থা করলে জলাবদ্ধতা থেকে আমরা মুক্তি পেতাম। আমাদের চাওয়া রাস্তাটিতে দ্রুত নালা ব্যবস্থা করে জনসাধারণের দুর্ভোগ কমানোর।

বারুয়াখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক বাবু পুলকেশ বিশ্বাস বলেন, অল্প বৃষ্টিতে রাস্তায় পানি জমে যায়। কয়েক বছর ধরে আমাদের এই সমস্যায় ভুগতে হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে পড়ছে স্কুলগামী শিক্ষার্থীরা। তিনি দ্রুত এ সমস্যা সমাধানের দাবি জানান।

এ ব্যাপারে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আরিফুর রহমান শিকদার বলেন, ‘সামান্য বৃষ্টি হলেই রাস্তায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়াটা দুঃখজনক। এতে ভোগান্তিতে পড়তে হয় জনসাধারণকে। সবিষয়টি নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় মেম্বারকে অবগত করা প্রয়োজন। ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা হবে এতে জনসাধারণ দ্রুত এ সমস্যার প্রতিকার পাবেন।’

এখান থেকে আপনার সোস্যাল নেটওয়ার্কে শেয়ার করুন

Leave a Reply

ক্যাটাগরির আরো খবর
© এই ওয়েবসাইটি প্রিয়বাংলা২৪নিউজ.কম দ্বারা সংরক্ষিত।
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান