1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন

আন্তর্জাতিক নৌকাবাইচে নবাবগঞ্জ রোইং ক্লাব তৃতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক.
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২
  • ৩১৬ বার দেখা হয়েছে।

বৈঠার ছলাৎ ছলাৎ শব্দ আর দর্শকের উচ্ছ্বাসে মুখর হাতিরঝিল। হৈ হুল্লোড় আর বুলির তালে তালে এ যেন একে অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা। এই নৌকাবাইচ কিছুটা হলেও ভুলিয়ে দিয়েছে যান্ত্রিক জীবনের নানা বিড়ম্বনা। উপস্থিত দর্শকরাও এই আয়োজন নিয়ে উচ্ছ্বসিত। কেউ এসেছেন ভবিষ্যত প্রজন্মকে নিজেদের ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে।

বুধবার রাজধানী হাতিরঝিলে হয়ে গেল বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক নৌকা বাইচ। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ রোইং ফেডারেশন আয়োজিত একদিনের এই প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

প্রতিযোগিতায় পুরুষ বিভাগে প্রথম হয়েছে বাংলাদেশের সবুজ দল, দ্বিতীয় হয়েছে ভারত এবং তৃতীয় হয়েছে বাংলাদেশের নবাবগঞ্জ রোইং ক্লাবের সাদা দল।
মহিলা বিভাগে ভারতের কলকাতা বেঙ্গল ওয়াটার স্পোর্টস ক্লাব চ্যাম্পিয়ন হবার গৌরব অর্জন করেছে। প্রতিযোগিতায় আন্তর্জাতিক ও জাতীয় ২টি ইভেন্টে নবাবগঞ্জ রোইং ক্লাব তৃতীয় স্থান অধিকার করে। আন্তর্জাতিক ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ পুরুষ দল জিতলেও নারী ক্যাটাগরিতে ভারতের কাছে হেরেছে বাংলার নারীরা। আন্তর্জাতিক ও জাতীয় দুই ইভেন্টেই তৃতীয় হয়েছে নবাবগঞ্জের রোইং ক্লাব।

বাইচে ভারত ও বাংলাদেশের ২০টি টিম অংশগ্রহণ করে। এরমধ্যে ৫টি মহিলা টিম অংশগ্রহণ করে। নৌকাবাইচ শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে। নৌকাবাইচে দুটি ইভেন্ট ছিল । একটি আন্তর্জাতিক ইভেন্ট। এই ইভেন্টে ভারতের ২টি পুরুষ দল ও ২টি মহিলা দল এবং বাংলাদেশের ৩টি পুরুষ দল ও ৩টি মহিলা দল অংশগ্রহণ করে। আন্তর্জাতিক ইভেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশের ৩টি দল লাল, সবুজ ও সাদা।

সবুজ টিমের নেতৃত্বে ছিল নারায়ণগঞ্জ রোইং ক্লাবের সভাপতি মোবারক হোসেন, লাল দলের নেতৃত্বে শাহীনবাগ রোইং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হামিদুল হক এবং সাদা দলের নেতৃত্বে নবাবগঞ্জ রোইং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশিম মোল্লা। বাংলাদেশের ৩টি মহিলা টিম খেলে। টিমগুলো হচ্ছে চুন কুটিয়া রোইং ক্লাব, নড়াইল রোইং ক্লাব এবং বান্দরবান রোইং ক্লাব। অপরটি জাতীয় ইভেন্ট।

এই ইভেন্টে দেশের ১০টি ক্লার অংশগ্রহণ করে। ক্লাবগুলো হলো- ঢাকা রোইং ক্লাব, শাহীনবাগ রোইং ক্লাব, নারায়ণগঞ্জ রোইং ক্লাব, নবাবগঞ্জ রোইং ক্লাব, টঙ্গী রোইং ক্লাব, নিউ ইয়ং স্টার রোইং ক্লাব, বাংলাদেশ বোট রেস (রোইং) কাউন্সিল, বরিশাল রোইং ক্লাব, সিলেট নৌকাবাইচ সমিতি।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় দেশের নদ-নদী আমাদের শরীরের শিরা-উপশিরার মতো উল্লেখ করে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ। এদেশে এক সময় ১২০০ নদী ছিল এখন সেটি কমে ৭০০ হয়েছে। নদীগুলো দেশের শিরা-উপশিরা। নদী কমে যাওয়ায় নৌকা-বাইচও কমে গেছে। নদ-নদীর তীর যারা দখল করে, নদী বা জলাশয় ভরাট কিংবা দূষিত করে তাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলা দরকার। এক সময়ের দুর্গন্ধময় হাতিরঝিলকে বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে প্রকল্প গ্রহণ করে এ্যাম্ফিথিয়েটার প্রতিষ্ঠাসহ নান্দনিক রূপ দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, নৌকা-বাইচ প্রতিযোগিতা নগর জীবনে একটি নতুন মাত্রা যোগ করল। আশা করি রোইং ফেডারেশন নিয়মিতভাবে হাতিরঝিলে নৌকা-বাইচ প্রতিযোগিতার আয়োজন করবে।

প্রসঙ্গক্রমে মন্ত্রী বলেন, ‘নৌকার সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক শুধুমাত্র নদীপাড়ায় নয়, আমরা যারা আওয়ামী লীগ করি, আমাদের আওয়ামী লীগের প্রতীক হচ্ছে নৌকা। নৌকা আবহমান বাংলার হাজার বছরের পুরনো বাঙালির চিহ্ন।

রোইং ফেডারেশনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা আবু কাওসারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে যোগ দেন ভারতের হাই কমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী এবং রাজধানী উন্নয়ন কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান এ বি এম আমিন উল্লাহ নূরী।

এ ছাড়াও অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক হাজী মো: খোরশেদ আলম, প্রতিযোগিতার স্পন্সরকারী মাসুদ স্টিল ডিজাইন বিডি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এম মাসুদুর রহমান প্রমুখ।

এখান থেকে আপনার সোস্যাল নেটওয়ার্কে শেয়ার করুন

Leave a Reply

ক্যাটাগরির আরো খবর
© এই ওয়েবসাইটি প্রিয়বাংলা২৪নিউজ.কম দ্বারা সংরক্ষিত।
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান