1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
  2. sujitpauldhaka@gmail.com : Sujit Kumer Paul :
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন

নবাবগঞ্জে দালালের ঘুষিতে হাত ভাঙলো রোগীর!

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ১ মে, ২০২১
  • ১৯০ জন নিউজটি দেখা হয়েছে।

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগী কাড়াকাড়ির সময়ে ক্লিনিক দালাল ঘুষিতে হাত ভাঙলো ফাতেমা সুলতানা (২৮) নামে এক নারী রোগীর। এঘটনায় নবাবগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। অভিযুক্ত দালালের নাম রহিম।

শনিবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ফটকের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঐ নারী ও তার স্বামী নবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবে এসে সংবাদকর্মীদের কাছে অভিযোগ করেন।

আহত ফাতেমা সুলতানা সিরাজদিখান উপজেলার চিত্রকোট ইউনিয়নের গিরিনগর গ্রামের ইমন হাসান রুবেলের স্ত্রী বলে তারা জানান।

ভুক্তভোগী ফাতেমা সুলতানা জানান, শনিবার বেলা ১২টার দিকে তার দাঁতের ব্যথার চিকিৎসা নিতে স্বামীসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। এসময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মুল ভবনের সিড়ির কাছে ক্লিনিক দালাল রহিম ও বেগম অন্য এক রোগী টানাটানি নিয়ে বাকবিতন্ডা করছিলেন। তারা দুজন সিড়ি দিয়ে উঠার মুহুর্তে ক্লিনিক দালাল রহিম আরেক দালাল বেগমকে ঘুষি মারতে যায়। ঐ মুহুর্তে বেগম সরে গেলে ঘুষি ফাতেমা সুলতানার হাতে গিয়ে লাগে। তাৎক্ষণিক তাকে স্থানীয় একটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে এক্সরে করা হলে হাড়ে ফাটল দেখা যায়।

ফাতেমা সুলতানার স্বামী ইমন হাসান রুবেল বলেন, এটি একটি দু:খজনক ঘটনা। আমরা উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশে সহযোগীতা চাই। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই। যাতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসা আর কোন রোগী এ ঘটনার শিকার না হন।

এঘটনায় নবাবগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক আব্দুল জলিল একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন।

নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. শহীদুল ইসলাম এবিষয়ে বলেন, বিষয়টি জেনেছি। হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগী ও স্বজনদের প্রতিদিনই সচেতন করা হচ্ছে। দালালদের সর্তকতার পাশাপাশি ধরে পুলিশেও দেয়া হচ্ছে। জেল, মুচলেকা, সাজা দিয়েও রোধ করা যাচ্ছে না। এঘটনায় নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগীতা চেয়েছি।

এই নিউজটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরির আরও নিউজ
কপিরাইট © ২০১৯-২০২০
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান