1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
  2. sujitpauldhaka@gmail.com : Sujit Kumer Paul :
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন

নয়াবাড়ির পথে পথে ড্রেজার পাইপ, সড়কে ধ্বস

তানজিম ইসলাম:
  • আপডেট সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৫৩ জন নিউজটি দেখা হয়েছে।

ঢাকার দোহার উপজেলার নয়াবাড়ি ইউনিয়ন জুড়ে চলছে রমরমা বালু ব্যবসা। বালু ব্যবসায়ীরা কোন ধরণের সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে প্রধান প্রধান সড়কের উপর ও নিচ দিয়ে পাইপ ঢুকিয়ে বালুর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে নির্বিঘ্নে। সড়কের নিচ দিয়ে পাইপ নেয়ায় গত বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) দোহার-নবাবগঞ্জ-মানিকগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের আন্তা এলাকায় ঘটেছে সড়ক ধ্বসের ঘটনা। এরপর বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) নয়াবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের প্রবেশের সড়কে ঘটেছে একই ঘটনা। এ নিয়ে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, ১০/১৫ দিন আগে রাতের আঁধারে সেলিম রেজা, নয়াবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৫নং ওয়ার্ড সভাপতি মো. শহিদ, যুবলীগ নেতা জনি, ওয়াসিম ও মোক্তার মিলে নয়াবাড়ি ইউনিয়নের আন্তা বড় বাড়ির মোড় সংলগ্ন এলাকায় আঞ্চলিক মহাসড়কের নিচ দিয়ে গর্ত করে ড্রেজারের পাইপ ঢুকিয়ে দেয়। বুধবার সকালে সড়কটির ওই স্থানটিতে ধ্বস নামে। দীর্ঘক্ষণ যান চলাচল বন্ধ থাকে সড়কটিতে। তরিঘরি করে ড্রেজার ব্যবসায়ীরা মিলে মাটি ফেলে গর্ত ভরাটের চেষ্টা করে।


সরেজমিনে বুধবার দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, একটি বাঁশ দিয়ে ধসে যাওয়া স্থানটি চিহ্নিত করে রাখা হয়েছে। পাশেই রাস্তার উপর ফেলে রাখা হয়েছে মাটি। সড়কটির একপাশ বন্ধ থাকায় অপর পাশ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। এতে যেকোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।


নয়াবাড়ি ইউনিয়নের বাসিন্দারা জানান, শুধু আন্তা নয় এই ইউনিয়নের প্রধান প্রধান প্রধান সড়ক থেকে শুরু করে গ্রামের অলিগলির সড়ক পর্যন্ত সবখানে ড্রেজারের পাইপ। কোথাও সড়কের উপর দিয়ে আবার কোথাও সড়কের নিচ দিয়ে। সড়কের উপরের পাইপগুলো এক থেকে দেড় ফুট উঁচু করে বসানো হয়েছে। মাঝে মধ্যেই দূর্ঘটনা ঘটছে। এ নিয়ে প্রতিবাদ করেও কোন লাভ হচ্ছে না কারণ সবাই সরকার দলীয় নেতা, কেউ আবার দলের পাতি নেতা। পদ্মা নদীর দিকে তাকালে শুধু ড্রেজার আর পাইপ চোখে পড়বে। কোথাও কোথাও বাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ করে পাইপ ঢোকানো হয়েছে।


নয়াবাড়ি ইউনিয়নের বাহ্রাঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পদ্মা নদী থেকে বাল্কহেডের মাধ্যমে নদীর তীর থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে পাইপের মাধ্যমে বিভিন্ন স্থানে মাটি ফেলা হচ্ছে। এ কাজে সেখানে ব্যবহ্রত হচ্ছে ৮ থেকে ১০টি ড্রোজার মেশিন। এসব ড্রেজারগুলো যারা নিয়ন্ত্রণ করছেন তারা সবাই আওয়ামীলীগ ও তার বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মী। তাদের মধ্যে একজন ইউপি সদস্যও রয়েছেন।


এ বিষয়ে নয়াবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ায়ম্যান শামীম আহমেদ হান্নান বলেন, অবৈধ ড্রেজার ও রাস্তা ফুটো করে পাইপ ঢোকানোর বিষয়ে আমি উপজেলা ও থানা প্রশাসনকে অবহিত করেছি। তারা অতি শিঘ্রই ব্যবস্থা নিবে বলে আমাকে আশ্বস্ত করেছেন।

এই নিউজটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরির আরও নিউজ
কপিরাইট © ২০১৯-২০২০
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান