1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪৫ অপরাহ্ন

দোহারে যুবলীগ সভাপতির নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা: থাকতে পারবেন না আজ বর্ধিত সভায়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৩০ বার দেখা হয়েছে।

চেক জালিয়াতি মামলায় ঢাকা জেলার দোহার উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আলমাছ উদ্দিনের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। যে কারনে উপজেলা যুবলীগের আজ (শনিবার) বর্ধিত সভায় উপস্থিত থাকতে পারছেন না আলমাছ উদ্দিন। সাংগঠনিক নিয়মানুসারে বর্ধিত সভায় সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাহউদ্দিন রশিদ।

জানা যায়, উপজেলার বিলাসপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলাউদ্দিন মোল্লার দায়ের করা চেক জালিয়াতি মামলায় আলমাছ উদ্দিনকে তিন মাসের কারাদন্ড দিয়ে সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) আলামাছ উদ্দিনের বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেপ্তার পরোয়ানা ও কারাদন্ডের নথি দোহার থানায় আসে। সেই থেকে সে পলাতক রয়েছেন।

বিলাসপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন মোল্লা মামলার কথা স্বীকার করে বলেন, আলমাস উদ্দিন তার কাছ থেকে টাকা ধার নিয়েছিলেন। কিন্তু তা পরিশোধ করেননি। তিনটি ভুয়া চেকে তিনটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে দুটো মামলায় সাজা হয়েছিল। একটি বহাল আছে, একটিতে উচ্চ আদালতে আপিল করেছে।

সাজার নথি থেকে জানা যায়, আলমাছের বিরুদ্ধে The Negotiable Instruments Act, ১৮৮১ এর ১৩৮ ধারায় আনীত অভিযোগ সন্দেহাতিতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ২০২০ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর তিন মাসের সশ্রম কারাদন্ড ও দ্বিগুণ জরিমানা প্রদান করেন ঢাকার ষষ্ঠ আদালতের অতিরিক্ত দায়রা জজ নিলুফার সুলতানা। আসামি হাজতবাসে থাকলে তা The Code of Criminal Procedure ১৮৯৮ এর ৩৫ এ ধারার বিধান মোতাবেক তা কারাদন্ডের মেয়াদ থেকে কর্তন করা হবে।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানার নথি থেকে জানা যায়, সাজাপ্রাপ্ত আসামি আলমাছ পলাতক থাকায় এ মাসের ৫ তারিখে কোর্ট পুলিশ পরিদর্শকের কার্যালয় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে দোহার উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আলমাছ উদ্দিনের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

ঢাকা জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি সালাউদ্দিন দরানি জানান, যুবলীগে অপরাধীদের কোনো জায়গা নেই। আলমাছের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের সত্যতা পেলে অনৈতিক কাজের সঙ্গে জড়িত থেকে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দোহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তফা কামাল জানান, একটি সিআর মামলায় দোহার উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আলমাছের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার নথি আমরা পেয়েছি। তিনি পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এখান থেকে আপনার সোস্যাল নেটওয়ার্কে শেয়ার করুন

Leave a Reply

ক্যাটাগরির আরো খবর
© এই ওয়েবসাইটি প্রিয়বাংলা২৪নিউজ.কম দ্বারা সংরক্ষিত।
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান