1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
  2. sujitpauldhaka@gmail.com : Sujit Kumer Paul :
মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৪২ অপরাহ্ন

কার্তিকপুর থেকে চলল বিআরটিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক। প্রিয়বাংলা নিউজ২৪
  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ২৮৪০ জন নিউজটি দেখা হয়েছে।

অবশেষে দোহার উপজেলার কার্তিকপুর বাজার থেকে রাস্তায় চলল বিআরটিসির এসি ও ননএসি বাস সার্ভিস। গত ২৫ জানুয়ারি সালমান এফ রহমান এমপির হাত ধরে এ বাস সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলেও মূলত আজ শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে দুটি এসি ও দুটি ননএসি বাস নিয়ে বিআরটিসির সার্ভিস শুরু হল দোহার-শ্রীনগর-যাত্রাবাড়ি-গুলিস্তান সড়কে। এ উপলক্ষে কার্তিকপুর বাজারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন।

দোহার-শ্রীনগর-ঢাকা সড়কে বিআরটিসি বাস সার্ভিসের দায়িত্বে থাকা সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর হোসেন প্রিয়বাংলা নিউজ২৪ কে বলেন, দোহার উপজেলার কার্তিকপুর থেকে চলবে বিআরটিসির এসি ও ননএসি বাস। কার্তিকপুর থেকে ছেড়ে জয়পাড়া-ফুলতলা-শ্রীনগর ও যাত্রাবাড়ি ফ্লাইওভার দিয়ে যাবে গুলিস্তান পর্যন্ত। প্রাথমিকভাবে কার্তিকপুর থেকে এসি বাসের ভাড়া ১৭০ টাকা ও ননএসি বাসের ভাড়া ১১০ টাকা নির্ধারণ করা হচ্ছে। লটাখোলা করম আলীর মোড় থেকে এসি বাসের ভাড়া হবে ১৫০ টাকা ও ননএসি ১০০ টাকা।

মি. আলমগীর দাবি করেন, সিটিং সার্ভিসের পুরোপুরি নিয়ম মেনেই এ বাস চলবে। একজন যাত্রীকেও দাঁড়িয়ে নেয়া হবে না। বিআরটিসি কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা ও সরকার নির্ধারিত ভাড়ার নিয়ম মেনেই ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি জানান, সরকার নির্ধারিত ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ২ টাকা ৬৫ পয়সা। সে হিসেবে কার্তিকপুর থেকে যাত্রবাড়ি হয়ে গুলিস্তানের দূরত্ব ৬৫ কিলোমিটার। তিনি বলেন, যাত্রীদের সুবিধার জন্য এমপি সালমান এফ রহমান এ সার্ভিস চালু করেছে। কাজেই যাত্রীদের সুবিধাই আগে প্রাধান্য পাবে। প্রাথমিক সিদ্ধান্তে ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। কিছুদিন চলার পর প্রয়োজনের ভাড়ার সমন্বয় করা হবে।

যাত্রবাড়ি দিয়ে বাস গুলিস্তান যাওয়া প্রসঙ্গে আলমগীর হোসেন বলেন, সুত্রাপুর, পোস্তগোলা, যাত্রবাড়ি দিয়ে দোহারে আসা-যাওয়ার অনেক যাত্রী রয়েছে। তাদের সুবিধার কথা চিন্তা করে এ সড়ক নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি দাবি করেন, যাত্রাবাড়ি-গুলিস্তান ফ্লাইওভার দিয়ে এ বাস চলবে বিধায় সময়ের হেরফের খুব একটা হবে না।

দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জবাসীল দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল এই সড়কে বিআরটিসি বাস চলবে। সালমান এফ রহমান এমপির হাত ধরে তা আজ বাস্তব। এর মধ্য দিয়ে দোহার-নবাবগঞ্জের পরিবহন সেক্টরে নতুন একটি অধ্যায়ের সূচনা হল। আমরা প্রত্যাশা রাখি বিআরটিসি বাস দোহার-নবাবগঞ্জের মানুষকে ভাল সার্ভিস দিতে সক্ষম হবে।

এই নিউজটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরির আরও নিউজ
কপিরাইট © ২০১৯-২০২০
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান