1. news@priyobanglanews24.com : PRIYOBANGLANEWS24 :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

কেরানীগঞ্জে অবৈধ কারখানা থাকবে না (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক। প্রিয়বাংলা নিউজ২৪
  • Update Time : রবিবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৪৩২ Time View

কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া আবাসিক এলাকায় থাকা প্রাইম প্লেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের পর এবার অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটল কেরানীগঞ্জের পূর্ব বন্দ ডাকপাড়া আবাসিক এলাকার আর একটি কেমিক্যাল গোডাউনে। রবিবার বেলা ১২ টার দিকে বিকট শব্দে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে বন্দ ডাকপাড়া এলাকার মো. মারুফের মালিকানাধীন রাসায়নিক গুদামে। বিস্ফোরণে পুরোপুরি ধসে পড়ে গুদামটি। ক্ষতিগ্রস্ত হয় আশপাশের ৮-১০টি বাড়ির দেয়াল।
বিস্ফোরণে উড়ে গেছে আধা পাকা গুদামের টিনের চাল, ধ্বসে পড়েছে সম্পূর্ণ দেয়াল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ সহ স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশের কর্মকর্তারা। তারা বলেন, কেরানীগঞ্জে অবৈধ কোন কারখানা থাকবে না।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিত দেবনাথ বলেন, কিছুদিন আগে কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকা-ে অনেক মানুষ মারা গেছেন। এরপর থেকেই আমরা অবৈধ কারাখানার বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রেখেছি। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি কারখানা ঝূঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ বলেন, আমার এলাকায় কোনো অবৈধ কারখানা বা গোডাউন থাকবে না। আমি ইতোমধ্যে কেরানীগঞ্জের সব ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যদের নিয়ে আলোচনা করেছি। অবৈধ কারখানা ও গোডাউনের তালিকা করে এগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে।

এ বিস্ফোরণের বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) কেরানীগঞ্জ সার্কেল কামরুল হাসান সোহেলকে আহ্বায়ক ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামকে সদস্য সচিব করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, দুপুরে বিকট শব্দে তিনটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলে আতঙ্কে লোকজন ছুটোছুটি শুরু করে। বিস্ফোরণ থেকে সৃষ্ট আগুন একঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনেন কেরানীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

কেরানীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র অফিসার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন লাগার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক আমাদের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে চল্লিশ মিনিট চেষ্টার পর আগুন সম্পূর্ণ নিভাতে সক্ষম হয়েছে। আগুনে কেউ হতাহত হয়নি। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমান জানা যায়নি।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক মো. মোস্তফা মোহসীন বলেন, গোডাউনটিতে সোডিয়াম থায়ো, ম্যাঙ্গানিজ সালফেট মনোহাইড্রেট ও ম্যাগনেসিয়াম ক্লোরাইড ছিল। ধারণা করা হচ্ছে সোডিয়াম থায়ো থেকেই বিস্ফোরণ হয়েছে। এখানে গোডাউন করার কোনো অনুমোদন ছিল না।

এ ঘটনার পর থেকেই কেমিকেক্যাল কারখানার মালিক পলাতক রয়েছেন। তার নাম মারুফ। এখানে একসঙ্গে তার তিনটি গোডাউনে ছিল। এছাড়াও একই উপজেলার চুনকুটিয়া এলাকায় তার আরেকটি গোডাউন রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

গেল বছরের ১১ ডিসেম্বর কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া আবাসিক এলাকায় থাকা প্রাইম প্লেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২০ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুর পর থেকে ক্ষুব্ধ কেরানীগঞ্জের মানুষ। আবাসিক এলাকা থেকে সবধরনের কারখানা সরাতে দাবি জানিয়েছেন তারা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

More News Of This Category
© এই ওয়েবসাইটি প্রিয়বাংলা২৪নিউজ.কম দ্বারা সংরক্ষিত।
পিবি লিংক এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান